এসি ছাড়াই ঘর শীতল করার উপায়

গরমে অনেকেরই অস্বস্তিকর দিন কাটছে। যাদের ঘরে এসি রয়েছে তারাও বিপাকে পড়েছেন লোডশেডিং বেড়ে যাওয়ায়। তবে এসি ছাড়াও ঘরকে শীতল করা সম্ভব। কিছু পদক্ষেপ নিলেই আপনার ঘর ঠান্ডা হয়ে যাবে এবং আরামে দিন কাটাতে পারবেন।

* জানালায় পর্দা ব্যবহার করুন: ঘরে তাপমাত্রা বৃদ্ধির প্রধান কারণ হলো রোদের প্রবেশ, তাই দিনের বেলায় জানালায় পর্দা ব্যবহার করুন। ঘরে যতটুকু সূর্যালোক ঢুকে তার তিন-চতুর্থাংশই তাপমাত্রা বাড়িয়ে থাকে। তাই জানালায় পর্দা ব্যবহার করলে তাপের অনুপ্রবেশ কমে আসবে।

* চুলা বন্ধ রাখুন: চুলা নিশ্চিতভাবে ঘরের তাপমাত্রা বাড়িয়ে থাকে। তাই লোডশেডিং বেড়ে গেলে বা দীর্ঘায়িত হলে অপ্রয়োজনীয় রান্না কমিয়ে ফেলতে হবে। উদাহরণস্বরূপ, ঘন ঘন চা পানের প্রবণতা থাকলে তা কমাতে পারেন অথবা পানি ফুটিয়ে বিশুদ্ধকরণের পরিবর্তে অন্যান্য উপায় অবলম্বন করতে পারেন। ঘরকে ঠান্ডা রাখতে চাইলে তাপের উৎস কমাতেই হবে।

* হোম অ্যাপ্লায়েন্সের ব্যবহার কমান: আপনি হয়তো অবাক হবেন- কিন্তু এটা সত্য যে ওয়াশার, ডিশওয়াশার ও ড্রাইয়ারও ঘরের তাপমাত্রা বাড়ায়।। তাই যথাসম্ভব পরিষ্কারকরণ ও শুকানোর কাজে বিদ্যুৎ ব্যবহার না করাই ভালো। আরো চমকপ্রদ তথ্য হলো, ফোন চার্জার ও অন্যান্য ছোট অ্যাপ্লায়ান্সও ঘরের তাপমাত্রা কিছুটা বাড়িয়ে থাকে। তাই প্রয়োজন না হলে ঘরের যেকোনো অ্যাপ্লায়ান্স বন্ধ রাখুন বা আনপ্লাগ করুন।

* ঘরের বাইরে ছায়ার ব্যবস্থা করুন: ঘরের আশপাশে গাছপালা থাকলে ঘরে রোদের তাপ তেমন প্রবেশ করে না। আপনার ঘরের আশপাশে গাছপালা না থাকলে ছায়ার যোগান দিতে জানালায় অনিং (ক্যানভাসের শিট) লাগাতে পারেন। জানালায় অনিং ব্যবহারে ঘরে সূর্যালোকের প্রবেশ প্রায় ৬৫ শতাংশ পর্যন্ত কমাতে পারে। ভবিষ্যতের কথা ভেবে ঘরের আশপাশে চারা রোপণ করতে পারেন।

* অব্যবহৃত রুমের দরজা বন্ধ রাখুন: আপনি ঘরের যেখানে থাকেন ঠিক সেই রুমের শীতলতা বাড়াতে অন্যান্য রুমের দরজা বন্ধ করে দিন। প্রয়োজনে দিনের বেলায় পরিবারের সকল সদস্য একই রুমে অবস্থান করতে পারেন, যদি গরমে বেশি অস্বস্তি অনুভব করেন।

* দরজা ও জানলার ফাঁকাস্থান ঢেকে দিন: শীতকালে যেমন ঘরের ফাঁকফোকর দিয়ে হু হু করে যে ঠান্ডা প্রবেশ করে, তেমনি গরমকালে এসব ফাঁকফোকর দিয়ে সূর্যের তাপও প্রবেশ করে থাকে। তাই দরজা-জানলার ফাঁকাস্থান বা ঘরের অন্যান্য ফাঁকফোকর বন্ধ করে দেয়ার মানে হলো, ঘরের শীতলতা বাড়াতে চলেছেন।

* রোদ পড়ে গেলে জানলা খুলুন: ঘরকে ঠান্ডা রাখতে সকালে তেজি রোদ ওঠার পূর্বেই জানলা বন্ধ করে দিন এবং রোদ পড়ে গেলে খুলে দিন। জানলা খুলতে সন্ধ্যা পর্যন্ত অপেক্ষার প্রয়োজন নেই, রোদ নিস্তেজ হয়ে গেলেই খুলে দিতে পারবেন। পড়ন্ত বিকেলে বাইরের তাপমাত্রা ঘরের তাপমাত্রার চেয়ে কম হয়ে থাকে। তাই এসময় জানলা খুলে দিলে ঘর আরো ঠান্ডা হবে।

* গরম বাতাস বের করে দিন: রান্নাঘর ও বাথরুমের এগজস্ট ফ্যান চালু করলে কিচেন অ্যাপ্লায়ান্স ও শাওয়ারের যেকোনো তাপ দূর হয়ে যাবে। রাতে রুমের গরম বাতাস বাইরে বের করতে ও বাইরের ঠান্ডা বাতাস ভেতরে টানতে জানালাতেও এগজস্ট ফ্যান ব্যবহার করতে পারেন।