সবাই আমাকে ভালোবাসে, কিন্তু সময় দিতে পারছি না: দীঘি

ঢালিউডে এ প্রজন্মের আলোচিত শিল্পীদের অন্যতম প্রার্থনা ফারদিন দীঘি। বেশ কিছু সিনেমায় অভিনয় করে প্রশংসা কুড়িয়েছেন তিনি। সিনেপর্দার পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম যেমন, ফেসবুক, ইউটিউব, টিকটকেও ও ব্যাপক জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী। তবে সম্প্রতি চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট অনেকেই মনে করছেন, টিকটকের কারণে ইমেজ বা ভাবমূর্তি খারাপ হচ্ছে এই চিত্রনায়িকার।

গতকাল শনিবার (২৩ জুলাই) সন্ধ্যায় আলোচিত ‘পরাণ’ সিনেমার বিশেষ প্রদর্শনী অনুষ্ঠানে এই প্রশ্নের মুখোমুখি হয়েছেন দীঘি।

টিকটক করা প্রসঙ্গে এই অভিনেত্রী জানান, ‘টিকটক আমি একা করি না বাংলাদেশের নায়িকাদের মধ্যে, অনেকেই করে। আমি জানি না তাঁদের কেন এই প্রশ্ন করা হয় না। আপনি টিকটক করছেন দেখে আপনার ইমেজ খারাপ হতে পারে বা কথা হচ্ছে, কথাটা আমাকে নিয়ে বেশি হয়…।

টিকটক আমরা সব সময় করার সময় পাই না, আমাদের হাতে এত অঢেল সময় থাকে না যে টিকটক করার জন্য রেডি হব…। যখন আমরা ফ্রি থাকি, একটা কাজ করছি তখন ১৫ সেকেন্ড করা যায়।’ নায়িকা জানিয়েছেন টিকটক থেকে সরে আসছেন তিনি।

সেটা তাঁর ভাষ্যে এমন, ‘আপনারা যদি এখন আমাকে ফলো করেন, আমার হাতে আসলে ওই সময়টা নেই। পড়াশোনা, এসব কাজ নিয়ে আমার হাতে… আসলে সময় এতটাও পাওয়া যায় না। আমি যেহেতু জিনিসটা সময় দিতে পারছি না, জিনিসটা থেকে বের হয়ে আসতেছি… আপনারাও বের হয়ে আসেন এবার।’

তবে দীঘি জানিয়েছেন টিকটকে সবাই তাঁকে ভালোবাসেন, স্বীকার করেছেন এই অ্যাপের জন্য ফলোয়ারও বেড়েছে তাঁর। নায়িকা বলছিলেন, ‘টিকটকে আমার জনপ্রিয়তা বেড়েছে না কমেছে, আমি জানি না। টিকটকে আমাকে মানুষ অনেক সাপোর্ট দিয়েছে, পছন্দ করেছে; যার জন্য এক সময় ঘন ঘন বা অনবরত করা হতো… আমার ফলোয়ার এ জন্যই বেড়েছে। কিন্তু সবাই আমাকে ভালোবাসে।’