কখন মেয়েরা স’হ’বা’সের জন্য পাগল হয়ে যায়

যে জিনিসের গ’ন্ধ পেলে নারীদের উত্তে’জনা বেড়ে যায় ১০০ গু’ন- সুখদায়ক বা স্যাটিস্ফায়িং একটি প্রথম শর্ত হচ্ছে আপনার পার্টনারের প্রতি শ্র’দ্ধাশীল হওয়া। আপনি যে আনন্দ পাচ্ছেন সেও ততটুকূ আনন্দ পাচ্ছেন কী না তা যখন আপনি নিশ্চিত করতে উৎসাহিত হবেন, তখনই আপনে আপ স্যাটিস্ফায়িং হবে।

আরো পড়ুন : কারাগারে থেকেও যার ভালবাসার চিঠি পেয়েছিলেন পরীমনি। মা’’দ’’কে’’র মামলায় গ্রেফতার প্রায় এক মাস কারাগারে ছিলেন ঢাকাই সিনেমার আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমনি। কারাগারের ওই সময়টাতে একটি চিঠি তার শক্তি জুগিয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

৪ আগস্ট গ্রেফতার হওয়ার পর তিন দফা রিমান্ডে নিয়ে পরীমনিকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। প্রায় এক মাস পর বুধবার সকালে সাড়ে ৯টায় কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে বনানীর বাসায় আসেন পরীমনি।

রবিবার বিকালে নিজের ফেসবুক পাতায় একটি চিঠি প্রকাশ করে পরীমনি লেখেন— একটা চিঠি, আমার সব শক্তির গল্প। এখানেই…।

চিঠিটি লিখেছেন তার নানা শামসুল হক গাজী।

পরীমনিকে উদ্দেশ করে চিঠিতে তার নানা লেখেন— নানু, আমি ভালো আছি। কোনো চিন্তা কর না। তোমার সঙ্গে শিগগিরই দেখা দিব।’

জানা গেছে, বাবা-মাকে হারানোর পর পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়ার সিংহখালী গ্রামে নানাবাড়িতেই তার শৈশব ও কৈশোর কেটেছে।

শামসুল হক একসময় স্থানীয় একটি স্কুলের প্রধান শিক্ষক ছিলেন। পরে পরীমনির সঙ্গে তিনিও ঢাকায় চলে আসেন। মাঝে মাঝে পিরোজপুরে গিয়ে থাকেন তিনি।

বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে নানার প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালোবাসার কথা বলেছেন পরীমনি। পরীমনিকে গ্রেফতারের পর আদালত প্রাঙ্গণে তাকে দেখতে গিয়ে তারা নানা বলেছিলেন, পরীমনি পরিস্থিতির শিকার।